ঢাকা   ১৩ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ । ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
আসন্ন ঈদ উপলক্ষে ময়মনসিংহ শিল্প পুলিশ শিল্পাঞ্চলে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় বদ্ধপরিকর বিজিবির উত্তর-পশ্চিম রিজিয়ন আন্তঃব্যাটালিয়ন কারাতে প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত নাগরপুরে অনুষ্ঠিত হলো বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা ফুটবল টুর্নামেন্ট’২৪ বড়ইতলা নদীর উপর ব্রিজ নির্মাণের দাবিতে মানববন্ধন চাঁপাইনবাবগঞ্জে পাট চাষি সমাবেশ-২০২৪ পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন দেশ প্রিয় পত্রিকার চট্টগ্রাম বিভাগীয় ব্যুরো প্রধান পাবনায় শিশু পরিবারের শিক্ষার মানোন্নয়ন ও সুস্বাস্থ্য নিশ্চিতে করণীয় শীর্ষক কর্মশালা অনুষ্ঠিত এস এস সি পরীক্ষার্থী জিপিএ ৫ প্রাপ্তদের মধ্যে পনেরো হাজার টাকা বিতরণ মাদারীপুর জেলা শিবচরে খামারে আগুন, ১৩ গরু, সাড়ে ৩ হাজার মুরগি পুড়ে ছাই নীলফামারীতে যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

বাংলাদেশ বিভিন্ন ধরনের অনলাইন জুয়ায় সর্বস্ব হারাচ্ছেন অনেকে

প্রতিবেদকের নাম
  • প্রকাশিত : শনিবার, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২৪
  • 49 শেয়ার

 

নিজস্ব প্রতিবেদক,

বাংলাদেশে নতুন আরেক ব্যাধির নাম নাম হলো অনলাইন জুয়া। এক ধরনের কৌতূহল থেকেই বর্তমানে তরুণ প্রজন্ম ধাবিত হচ্ছে অনলাইন জুয়ার দিকে। মোবাইলে অবাধে খেলতে পাড়ায় সাচ্ছন্দেই খেলছে এসব অনলাইন জুয়া। পাঁচশ-হাজার টাকা হাজার টাকা বিনিয়োগ করে অল্প পরিশ্রমে বেশি টাকা লাভের আশায় স্বপ্নে বিভোর হয়ে লোভে পড়ে একপর্যায়ে খোয়াচ্ছে লাখ লাখ টাকা। অনেকেই হারাচ্ছেন সর্বস্ব। জুয়ার এসব সাইটের অধিকাংশ পরিচালনা করা হচ্ছে ভারত,রাশিয়া, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া প্রভৃতি দেশ থেকে। বাহিরের বিভিন্ন দেশ থেকে পরিচালিত এসব সাইট পরিচালনা করছে বাংলাদেশের বিভিন্ন এজেন্ট এর মাধ্যমে ।
এসব বেটিং ওয়েবসাইটে বিনিয়োগ এর মাধ্যমে প্রতিনিয়ত কোটি কোটি টাকা পাচার হয়ে যাচ্ছে দেশের বাহিরে। এসব জুয়ায় লেনদেনের সহজ মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে বাংলাদেশি মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস (এমএফএস)। সবচেয়ে অবাক করা বিষয়- রাশিয়া থেকে পরিচালিত একাধিক জুয়ার সাইটে বাংলাদেশিদের লেনদেনের জন্য মোবাইল ব্যাংকিং বিকাশ, নগদ, রকেট ও উপায় যুক্ত। এছাড়া রয়েছে ব্যাংকের মাধ্যমেও পেমেন্ট করার সুযোগ। ব্যাংক এশিয়া, ব্র্যাক ব্যাংক, ইসলামী ব্যাংক, সিটি ব্যাংক, ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেড ও ডাচ্-বাংলা ব্যাংকের অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে লেনদেন করা যায় এসব সাইটে । বিভিন্ন প্রকার বিজ্ঞাপন দেখিয়ে আকৃষ্ট করা হচ্ছে নিজেদের বেটিং সাইটের প্রতি।
এসব বেটিং ওয়েবসাইট অধিকাংশ ফেসবুক ও ইউটিউব ব্যবহারকারীদের টার্গেট করে জুয়ার সাইটের বিজ্ঞাপন দিচ্ছে হচ্ছে বাংলায়। ফলে তরুণ প্রজন্ম অনেকটাই ঝুকছে এসব জুয়ার দিকে। অনলাইন ক্যাসিনোর অ্যাপ ইনস্টলের জন্যও দেওয়া হচ্ছে বিভিন্ন অফার। এমনকি এসব সাইটের বিজ্ঞাপনে বাংলাদেশ বিভিন্ন সেলিব্রিটি ও মডেলকেদেরও দেখা যাচ্ছে প্রমোট করতে ।
এসব জুয়ায় সর্বস্ব হারানোর ফলে ঘটছে বিভিন্ন ধরনের অপরাধপ্রবণতা। বিভিন্ন পরিবারের ভিতরে বাধছে সাংসারিক কলহ। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ব্যাক্তি জানান,জুয়া খেলে যতটা লাভ-লোকসানের মধ্যে সাধারণ জুয়ারিরা পড়ছে কিন্তু বাস্তবেই লাভবান হচ্ছে এসব জুয়ার এজেন্টরা। কারন তারা শতকরা একটা অংশ লাভ করছে এসব জুয়ারিদের কাছ থেকে। তাই প্রশাসনের কাছে টার্গেট করে এসব জুয়ার এজেন্টদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় নিয়ে আসার অনুরোধ সচেতন মহলের।

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ
© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২৪