ঢাকা   ১৯শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ । ৪ঠা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :

নান্দাইলে হত্যা মামলার দুই আসামী চার্জশীট থেকে নাম বাদ দেওয়ার অভিযোগ এসআইয়ের বিরুদ্ধে

প্রতিবেদকের নাম
  • প্রকাশিত : বুধবার, জুলাই ১০, ২০২৪
  • 16 শেয়ার

নান্দাইল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি: হৃদয় হাসান,

 

ময়মনসিংহের নান্দাইলে নিরীহ আব্দুল হেলিম (৬৫) হত্যাকান্ডের ঘটনায় মামলার দুই আসামীকে চার্জশীট থেকে নাম বাদ দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপপরিদর্শক (এসআই) আব্দুল কাদিরের বিরুদ্ধে। এমন অভিযোগ করেন হত্যা মামলার বাদী আবু বক্কর ছিদ্দিক শাহীন। বুধবার (১০ জুলাই) সকাল ১১ টায় নান্দাইল প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন ও নান্দাইল চৌরাস্তা এই মানববন্ধন করে এমন অভিযোগ করেন নিহতের পরিবার। এদিকে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুল কাদিরের দাবী বাদীপক্ষ কে জানিয়ে চার্জশীট দেওয়া হয়েছে।

গত বছরের ৮ ডিসেম্বর উপজেলার আচারগাঁও ইউনিয়নের ঝাঁউগড়া গ্রামের আব্দুল হেলিম (৬৫) কে নরসুন্দা নদীর পাড়ে বীজতলায় একা পেয়ে প্রতিবেশী সুলতান মিয়ার পুত্র বুলবুল মিয়া (৩৫) পিটিয়ে হত্যা করে। এ ঘটনায় নিহতের ছেলে আবু বক্কর ছিদ্দিক শাহীন বাদী হয়ে মৃত সুলতান মিয়ার পুত্র বুলবুল মিয়া (৩৫), হাদিস মিয়া (৪৭), আলম মিয়া (২২) তিন জনের নামে হত্যা মামলা দায়ের করে। মামলার প্রধান আসামী গ্রেফতার হলেও বাকীদের ধরতে পারেনি থানা পুলিশ।

গত বুধবার (১০ জুলাই) সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্যে মামলার বাদী নিহতের ছেলে আবু বক্কর ছিদ্দিক শাহীন বলেন- আমার বাবা আব্দুল হেলিম কে পূর্বশত্রুতার জেরে গত বছরের ৮ ডিসেম্বর পিটিয়ে হত্যা করেছে। মামলা করা হলে আসামীরা আমাকে এবং আমার পরিবারকে মামলা তুলে নিতে হুমকি দেয়। হত্যা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপপরিদর্শক (এসআই) আব্দুল কাদির মামলার ২নং ও ৩নং আসামীকে চার্জশীটে নাম বাদ দিতে চাপ দেয়। আমি তাতে রাজী না হওয়াতে আমি ও আমার পরিবারের সাথে অসদাচরণ করে এবং আমার মত বাদীর প্রয়োজন নেই বলে জানান এসআই আব্দুল কাদির।

এদিকে নিহতের ভগ্নিপতি শফিকুল ইসলাম কামালের অভিযোগ- আসামীদের বাঁচাতেই এসআই আব্দুল কাদির বাদী পক্ষের কোন কথাই শুনে না। তিনি উনার মত আসামী পক্ষ নিয়ে চার্জশীট দিয়েছে। আমরা এটি মানি না এবং আসামীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবিও জানান। এসময় উপস্থিত ছিলেন -মামলার বাদী আবু বক্কর ছিদ্দিক শাহীন, নিহতের ছোট ছেলে মো. তুহিন মিয়া, ভগ্নিপতি শফিকুল ইসলাম কামাল, ভাতিজা মো. জুয়েল মিয়া, আত্নীয় আজিজুল ইসলাম সহ অনেকেই।

এ বিষয়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপপরিদর্শক (এসআই) আব্দুল কাদির মুঠোফোনে বলেন- বাদী পক্ষ যে অভিযোগ করেছে তা মিথ্যা। আমি তাদের সাথে কথা বলেই গত মাসে বুলবুল মিয়াকে অভিযুক্ত করে চার্জশীট দিয়েছি। এখন যদি চার্জশীট বাদীপক্ষের পছন্দ না হয় তাহলে নারাজি দিতে পারে।

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ
© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২৪