ঢাকা   ১৩ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ । ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
আসন্ন ঈদ উপলক্ষে ময়মনসিংহ শিল্প পুলিশ শিল্পাঞ্চলে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় বদ্ধপরিকর বিজিবির উত্তর-পশ্চিম রিজিয়ন আন্তঃব্যাটালিয়ন কারাতে প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত নাগরপুরে অনুষ্ঠিত হলো বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা ফুটবল টুর্নামেন্ট’২৪ বড়ইতলা নদীর উপর ব্রিজ নির্মাণের দাবিতে মানববন্ধন চাঁপাইনবাবগঞ্জে পাট চাষি সমাবেশ-২০২৪ পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন দেশ প্রিয় পত্রিকার চট্টগ্রাম বিভাগীয় ব্যুরো প্রধান পাবনায় শিশু পরিবারের শিক্ষার মানোন্নয়ন ও সুস্বাস্থ্য নিশ্চিতে করণীয় শীর্ষক কর্মশালা অনুষ্ঠিত এস এস সি পরীক্ষার্থী জিপিএ ৫ প্রাপ্তদের মধ্যে পনেরো হাজার টাকা বিতরণ মাদারীপুর জেলা শিবচরে খামারে আগুন, ১৩ গরু, সাড়ে ৩ হাজার মুরগি পুড়ে ছাই নীলফামারীতে যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

চট্টগ্রাম ডিবি পুলিশের বিরুদ্ধে টাকা আত্মসাতের মিথ্যে অভিযোগ

প্রতিবেদকের নাম
  • প্রকাশিত : সোমবার, মার্চ ৪, ২০২৪
  • 63 শেয়ার

সৈয়দ মোহাম্মদ কায়সার, চট্টগ্রাম জেলা প্রতিনিধি:

প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ায় “ডিবি পুলিশের বিরুদ্ধে ৩ কোটি টাকা আত্মসাতের” সংবাদ প্রকাশের প্রেক্ষিতে গত কয়েকদিন ধরে বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ায় ডিবি পুলিশের হাতে ৩ কোটি টাকা জব্দের খবর আমাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে। গত ২৬/০২/২০২৪ খ্রিঃ গোপন তথ্যের ভিত্তিতে মেট্রোপলিটন গোয়েন্দা (উত্তর ও দক্ষিণ) বিভাগের টিম-২১ এর সদস্য বায়েজিদ বোস্তামীর গুলবাগ আবাসিক এলাকায় অভিযান চালিয়ে অনলাইন জুয়া খেলার অভিযোগে মো. আবু বকর সিদ্দিক (৩৮) ও মো. ফয়জুল আমিন (৪১) নামে দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ। আসামিরা অনলাইনে জুয়া খেলার কথা স্বীকার করলে, তাদের পরের দিন অর্থাৎ ২৭/০২/২০২৪ইং তারিখে সিএমপি অধ্যাদেশের অধীনে জুয়া খেলার বিচারসহ বিজ্ঞ আদালতে হস্তান্তর করা হয়। ওই দিনই বিজ্ঞ আদালত আসামিদের খালাস দেন। পরে বিভিন্ন মিডিয়া থেকে জানা যায় যে, ২৬/০২/২০২৪ খ্রিঃ তারিখে অনলাইন জুয়া খেলার অভিযোগে গ্রেফতার হওয়া আসামী মো. আবু বক্কর সিদ্দিক মোবাইলে জুয়া খেলার পাশাপাশি BINANCE অ্যাপের মাধ্যমে অবৈধ ক্রিপ্টোকারেন্সি লেনদেন করত। কেউ উল্লিখিত BINANCE অ্যাপে আবু বকরের অ্যাকাউন্ট থেকে 4.97379221 BTC বিটকয়েন ক্রিপ্টোকারেন্সি সরিয়ে ফেলেছে।

ক্রিপ্টোকারেন্সি সম্পর্কিত লেনদেন অবৈধ ব্যবসা এবং বাংলাদেশে প্রচলিত আইন অনুসারে শাস্তিযোগ্য এবং বাংলাদেশ ব্যাংক এসআরও নং 59- অ্যাক্ট/2021। গোপন সূত্রে জানা যায়, মো. আবু বকর সিদ্দিকের পরিচিত মো. কাওসার আহম্মেদ (৩৫) এবং মো.শাহাদাত হোসেন (৩৫) নামে দুই ব্যক্তি বিন্যান্স অ্যাপস ওয়ালেট থেকে উপরের বিটকয়েনগুলো সরিয়ে দিতে পারে। তিনজনই দীর্ঘদিন ধরে এই অবৈধ ক্রিপ্টোকারেন্সিতে লেনদেন করে আসছে বলে জানা গেছে। এ বিষয়ে প্রাথমিক তদন্তকালে ০১/০৩/২০২৪ খ্রিঃ সিএমপি খুলশী থানাধীন ২ নং গেটে ভারতীয় হাইকমিশনার কার্যালয়ের সামনে থেকে মো. কাউসার আহমদকে গ্রেফতার করে ডিবি পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদের একপর্যায়ে কাওসার আহমেদ আবু বকরের বিন্যান্স অ্যাপ ওয়ালেট থেকে বিটকয়েন বের করার কথা স্বীকার করেন এবং তার কাছ থেকে জব্দ করা মোবাইল ফোনে ঘটনার সত্যতা পাওয়া যায়। পুলিশ অভিযুক্ত কাউসার আহমেদের ব্যবহৃত BINANCE অ্যাকাউন্ট থেকে 2,08,380 USDT (দুই লাখ আট হাজার তিনশত আশি) মূল্যের ক্রিপ্টোকারেন্সি উদ্ধার করেছে, যার আনুমানিক বাজার মূল্য 2,28,38,000 টাকা) বাংলাদেশী টাকায়। আবু বকর সিদ্দিককে তার BINANCE অ্যাপ ওয়ালেট থেকে স্থানান্তরিত ক্রিপ্টোকারেন্সি উদ্ধারের পর ডিবি অফিসে আসতে বলা হলেও তিনি হাজির হননি। এমনকি বিষয়টি পুলিশের ঊর্ধ্বতন কোনো কর্মকর্তাকেও জানাননি তারা। বিবাদী কাউসার আহমান জানান, আবু বকর সিদ্দিক বিবাদীর অনলাইন জুয়া এবং ক্রিপ্টোকারেন্সি লেনদেন সম্পর্কে তার পূর্ব পরিচিতির কারণে অবগত ছিলেন। 26/02/2024 তারিখে, আবু বক্কর সিদ্দিককে অনলাইন জুয়া খেলার অভিযোগে পুলিশ গ্রেপ্তার করার পর, কাউসার আহমেদ এবং তার সহযোগী মো. শাহাদাত হোসেন আবু বক্কর সিদ্দিকের উপরের BINANCE অ্যাকাউন্ট ওয়ালেট থেকে 4.97379221 BTC বিটকয়েন সরানোর ষড়যন্ত্র করে। অভিযুক্ত কাউসার আহমেদ প্রাথমিকভাবে স্বীকার করেন যে এই বিটকয়েনগুলি প্রথমে শাহাদাত হোসেনের অ্যাকাউন্টে গিয়েছিল। পরে, অভিযুক্ত শাহাদাত হুসাইন বিটকয়েন (বিটিসি) কে ইউএসডিটি তে রূপান্তর করে এবং কাউসার আহমেদের অ্যাকাউন্টে 2,08,380 ইউএসডিটি ক্রিপ্টোকারেন্সি (প্রায় 2,28,38,000 টাকা) স্থানান্তর করে, যা ইতিমধ্যে পুলিশ উদ্ধার করেছে।

ক্রিপ্টোকারেন্সি (বিটকয়েন/ইউএসডিটি) লেনদেন বাংলাদেশে অবৈধ এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ। গ্রেফতারকৃত মো.কাউসার আহমেদ (৩৫) এবং পলাতক মো. আবু বকর (৩৮) এবং মো. শাহাদাত হোসেন (৩৫) ধারা 23(1) এর অধীনে বাংলাদেশ সরকার ঘোষিত নিষিদ্ধ ক্রিপ্টোকারেন্সি (বিটকয়েন/ইউএসডিটি) সংরক্ষণ, মজুদ, স্থানান্তর এবং ক্রয়-বিক্রয়ের অভিযোগে অভিযুক্ত। ফরেন এক্সচেঞ্জ পলিসি অ্যাক্ট, ১৯৪৭ এর বায়েজিদ বোস্তামি থানায় মামলা নং-০৩ তারিখ০২/০৩/২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১৯৪৭ সালের বৈদেশিক বিনিময় নীতি আইনের ২৩(১) ধারায় তাদের বিরুদ্ধে অপরাধ করার জন্য নথিভুক্ত করা হয়েছে। অপরাধ. বিষয়টি বর্তমানে বিজ্ঞ আদালতের তদন্ত ও এখতিয়ারাধীন।

এছাড়াও প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, ডিবির একটি টিমের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ তদন্তে একটি অভ্যন্তরীণ তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এখানে কেউ জড়িত থাকলে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ বিষয়ে কোনো বিভ্রান্তিকর তথ্য প্রকাশ না করার জন্য সংবাদকর্মীদের অনুরোধ জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক।

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ
© স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২৪